বীমা কর্মচারীদের জন্য কল্যাণ তহবিল


Published: 2018-04-03 17:27:17 BdST

কে এম এহসানুল হক:

আপাতত দৃষ্টিতে মনে হতে পারে যে, বাংলাদেশের বীমা শিল্প এক দুঃসময়ের মধ্য দিয়ে কাল অতিক্রান্ত করছে। আসলে কথাটা বোধ হয় ঠিক নয়। কারণ বাংলাদেশের বীমা শিল্প জন্মলগ্ন থেকেই অসুবিধাজনক স্থানে অবস্থান করছে। আর সেই সাথে বীমা শিল্পের সঙ্গে জড়িত অজস্র কর্মচারীও আর্থিকভাবে অসুবিধার মধ্যে দিন যাপন করছে। অন্যান্য আর্থিক প্রতিষ্ঠান যেমন ব্যাংক ইত্যাদির তুলনায় বেতন এবং অন্যান্য সুযোগ সুবিধা কম বিধায় এই ব্যবসায়ে উপযুক্ত এবং দক্ষ লোকের অত্যন্ত অভাব দেখা দিয়েছে।

পৃথিবীর অনেক দেশে বীমা কর্মচারীদের জন্য প্রভিডেন্ট ফান্ড, গ্রুপ লাইফ ইন্স্যুরেন্স, গ্রুপ মেডিকেল ইন্স্যুরেন্স, বোনাস ইত্যাদির সুযোগ সুবিধা রয়েছে। এ ব্যাপারে বাংলাদেশের বীমা শিল্প অনেক পিছনে পরে আছে। বীমা কোম্পানির বাৎসরিক মুনাফার একটি ক্ষুদ্র অংশ এ খাতে ব্যয় করা যেতে পারে।

এমন খবরও বাজারে প্রচলিত যে, কিছু কিছু বীমা কোম্পানি কর্মচারীদের সঠিক সময়ে মাসিক বেতন দিতে পারে না, বাড়তি সুযোগ-সুবিধা দেয়াতো দূরের কথা।

বীমা মালিক পক্ষের দায়িত্ব কর্মচারীদের জন্য একটি কল্যাণ তহবিল গঠন করা, যা স্বল্প বেতনভুক্ত কর্মচারীদের আপদ-বিপদে কাজে আসবে। প্রস্তাবিত এই কল্যাণ তহবিলে প্রত্যেক বীমা কোম্পানি এককালীন চাঁদা হিসেবে একটি সম্মানজনক টাকা দান করতে পারে।

মালিক পক্ষের সংস্থা হিসেবে বাংলাদেশ ইন্স্যুরেন্স ইনস্টিটিউট এ ব্যাপারে এক মহতি উদ্যোগ গ্রহণ করতে পারে। এই কল্যাণ তহবিলের মাধ্যমে কর্মচারীর অকাল মৃত্যু, দুর্ঘটনা এবং মেডিকেল চিকিৎসার ব্যাপারে আর্থিক সহায়তা দেয়া যেতে পারে। বাংলাদেশ ইন্স্যুরেন্স এসোসিয়েশন এ কল্যাণ তহবিল পরিচালনার দায়িত্বভার গ্রহণ করতে পারে।

সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ ব্যাপারটি মানবিক দৃষ্টিকোণ থেকে বিবেচনা করলে বীমা শিল্পের সঙ্গে সম্পৃক্ত সাধারণ কর্মচারীবৃন্দ স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলতে সমর্থ হবে।

লেখকএ কে এম এহসানুল হক ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক ডিগ্রিসহ মাস্টার্স ডিগ্রি অর্জন করেছেন। প্রায় চার দশক দুবাইয়ে অবস্থানকালে তিনি আন্তর্জাতিক খ্যাতি সম্পন্ন বিভিন্ন বীমা কোম্পানিতে চাকরি করেছেন।

এ সময় তিনি লন্ডন থেকে ফেলো অফ দি চাটার্ড ইন্স্যুরেন্স ইন্সটিটিউট (এফসিআইআই), এসোসিয়েটস অফ দি ইন্সটিটিউট অফ রিস্ক ম্যানেজমেন্ট (এআইআরএম) এবং এসোসিয়েট অফ দি চাটার্ড ইন্সটিটিউট অফ আরবিট্রেটরস (এসিআইআরবি) ডিগ্রি অর্জন করেন।

ইন্স্যুরেন্সের ওপর এ পর্যন্ত লেখকের অনেকগুলো বই প্রকাশিত হয়েছে, যা দেশে এবং বিদেশে সমাদৃত। পেশায় লেখক একজন চাটার্ড ইন্স্যুরার। বর্তমানে তিনি সরকারী ও বেসরকারী বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষকতায় নিয়োজিত।

ইন্স্যুরেন্সনিউজবিডি'র পাঠকদের প্রয়োজনের দিকে লক্ষ্য রেখে বীমার গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলো নিয়ে লিখেছেন এ কে এম এহসানুল হক।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

সম্পাদক ও প্রকাশক
মোস্তাফিজুর রহমান টুংকু সম্পাদকীয় কার্যালয়
৫৩ মডার্ন ম্যানসন, মতিঝিল সি/এ, লেভেল # ১১, স্যুট # ৬, ঢাকা-১০০০।
ফোন: ০২ ৯৫১৪৮৭২, ইমেইল: insurancenewsbd@gmail.com