মঙ্গলবার , ২০ শ্রাবণ, ১৪২৭ , ০৪ আগস্ট, ২০২০

চলে গেলেন বীমাখাতের আরেক কিংবদন্তি লতিফুর রহমান


Published: 2020-07-02 11:01:23 BdST

নিজস্ব প্রতিবেদক: না ফেরার দেশে চলে গেলেন বীমাখাতের আরেক কিংবদন্তি লতিফুর রহমান। তিনি রিলায়েন্স ইন্স্যুরেন্স লিমিটেডের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান। গতকাল বুধবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে নিজ বাড়িতে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন (ইন্না লিল্লাহি… রাজিউন) । বার্ধক্যজনিত কারণে বেশ কিছুদিন ধরে তিনি শারীরিক নানা জটিলতায় ভুগছিলেন। জানাযা শেষে রাত ১০টায় ঢাকার বনানী কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়। লতিফুর রহমানের জন্ম ১৯৪৫ সালের ২৮ আগস্ট।

বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও শিল্পপতি লতিফুর রহমান আমৃত্যু ট্রান্সকম গ্রুপের চেয়ারম্যান পদে অধিষ্ঠিত ছিলেন। প্রথম আলো ও ডেইলি স্টার পত্রিকা দুটি প্রতিষ্ঠায় অনবদ্য ভূমিকা রেখেছেন তিনি। ১৯৮৮ সালে প্রতিষ্ঠিত বেসরকারি নন-লাইফ বীমা প্রতিষ্ঠান রিলায়েন্স ইন্স্যুরেন্স লিমিটেড লতিফুর রহমানেরই হাতে গড়া। ১৯৮৮, ১৯৮৯, ১৯৯৭ ও ২০০৫ সালে তিনি প্রতিষ্ঠানটির চেয়ারম্যান পদে দায়িত্ব পালন করেছেন বলে কোম্পানি সূত্রে জানা গেছে।

জানা যায়, ১৯৪৫ সালে ভারতের জলপাইগুড়িতে জন্মগ্রহণ করেন লতিফুর রহমান। পরবর্তীতে বাস করতেন পুরান ঢাকা গেন্ডারিয়ায়। তার স্ত্রীর নাম শাহনাজ রহমান। এই দম্পতির এক ছেলে আর দুই মেয়ে। ব্যবসা ক্ষেত্রে নৈতিকতা ও সামাজিক দায়বদ্ধতার স্বীকৃতি হিসেবে ২০১২ সালে বিজনেস ফর পিস অ্যাওয়ার্ড পুরস্কার পান।

সদ্য প্রয়াত এই বিজনেস টাইকুনের ট্রান্সকম গ্রুপের সঙ্গে সম্পৃক্ত ব্যবসাগুলোর মধ্যে অন্যতম হলো- ফাস্টফুড, কোমল পানীয়, ইলেকট্রিক্যাল ও ইলেকট্রনিক পণ্য, ওষুধ, সংবাদপত্র, চা শিল্প, বীমা ইত্যাদি। ট্রান্সকম গ্রুপের যাত্রা শুরু চা চাষের মাধ্যমে, যেটি এখন বাংলাদেশের অন্যতম একটি বড় করপোরেট প্রতিষ্ঠান।

এছাড়া লতিফুর রহমান নেসলে বাংলাদেশ, হোলসিম বাংলাদেশ এবং ন্যাশনাল হাউজিং ফাইন্যান্স ও ইনভেস্টমেন্টের চেয়ারম্যান। তিনি লিন্ডে বাংলাদেশ এবং এনজিও ব্র্যাকের গভর্নিং বোর্ডের পরিচালক। তিনি আইসিসি বাংলাদেশের সহ-সভাপতি। বাংলাদেশের বাজারে আন্তর্জাতিক ফাস্টফুড চেইন পিৎজা হাট ও কেন্টাকি ফ্রায়েড চিকেন (কেএফসি) প্রচলনের জন্য বিশেষভাবে পরিচিতি লাভ করেন লতিফুর রহমান।

উল্লেখ্য, গত ৩১ মে, ২০২০ না ফেরার দেশে চলে যান প্রগতি ইন্স্যুরেন্সের পরিচালক বিশিষ্ট শিল্পপতি এম আবদুল মোনেম। ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মৃত্যুবরণ করেন। এর আগে ২৪ মে, ২০২০ করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা যান আওয়ামী লীগের সাবেক সংসদ সদস্য ও সন্ধানী লাইফ ইন্স্যুরেন্স কোম্পানির চেয়ারম্যান হাজী মকবুল হোসেন।

গত ২০ মে, ২০২০ তারিখে মৃত্য বরণ করেন জীবন বীমা করপোরেশন (জেবিসি)’র সাবেক চেয়ারম্যান এম শামসুল আলম। বার্ধক্যজনিত কারণে রাজধানীর ইউনাইটেড হসপিটালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মৃত্যু বরণ করেন। তিনি ২০১৪ সালে জীবন বীমা করপোরেশনের চেয়ারম্যান নিযুক্ত হন। এর আগে সাধারণ বীমা করপোরেশনের চেয়ারম্যান ছিলেন এম শামসুল আলম।

ন্যাশনাল লাইফ ইন্স্যুরেন্সের মূখ্য নির্বাহী কর্মকর্তা জামাল এম এ নাসের মৃত্যুবরণ করেন ২১ জুন, ২০২০ তারিখে। রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মৃত্যুবরণ করেন। জামাল এম এ নাসের বিভিন্ন সময় দেশের ৬টি লাইফ বীমা কোম্পানির ঊর্ধ্বতন পদে নিযুক্ত ছিলেন। সর্বশেষ ২০১১ সালের জানুয়ারিতে দেশের শীর্ষস্থানীয় বীমা প্রতিষ্ঠান ন্যাশনাল লাইফ ইন্স্যুরেন্স কোম্পানিতে মূখ্য নির্বাহী কর্মকর্তা পদে যোগদান করেন।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

সম্পাদক ও প্রকাশক
মোস্তাফিজুর রহমান টুংকু সম্পাদকীয় কার্যালয়
৫৩ মডার্ন ম্যানসন, মতিঝিল সি/এ, লেভেল # ১১, স্যুট # ৬, ঢাকা-১০০০।
ফোন: ০২ ৯৫১৪৮৭২, ইমেইল: insurancenewsbd@gmail.com