বাংলাদেশ স্বাধীন করার জন্য বীমাখাতকে বেছে নিয়েছিলেন বঙ্গবন্ধু

নিজস্ব প্রতিবেদক: বীমা মালিকদের সংগঠন বাংলাদেশ ইন্স্যুরেন্স এসোসিয়েশন (বিআইএ)’র প্রেসিডেন্ট শেখ কবির হোসেন বলেছেন, বাংলাদেশকে স্বাধীন করার জন্য বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বীমাখাতকে বেছে নিয়েছিলেন। তাই স্বাধীনতার পর তিনি এই বীমাখাতের উন্নয়নে অনেক পদক্ষেপ নিয়েছিলেন।

আজ বুধবার লাইফ বীমা কোম্পানির গ্রাহকদের মৃত্যুদাবির চেক হস্তান্তর অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন। ‘বঙ্গবন্ধু আশার আলো-বীমা দাবি নিষ্পত্তির প্রয়াস’ নামে এই অনলাইন অনুষ্ঠানের আয়োজন করে নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইডিআরএ। কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান ড. এম মোশাররফ হোসেন অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন।

শেখ কবির হোসেন বলেন, স্বাধীনতার পর তৎকালীন সব বীমা কোম্পানিকে জাতীয়করণ করেন বঙ্গবন্ধু। এরপর ১৯৭৩ সালে সাধারণ বীমা করপোরেশন এবং জীবন বীমা করপোরেশন প্রতিষ্ঠা করেন। বঙ্গবন্ধু বীমা একাডেমি করেছেন, তিনি যেভাবে এটা করে গেছেন এখনো সেভাবেই রয়েছে। আমি বলেছি বীমা একাডেমিকে উন্নত করতে। এই খাতের উন্নয়ন ও শৃঙ্খলা ফিরিয়ে না আসলে দেশের অর্থনীতি আগাতে পারবে না।

বিআইএ প্রেসিডেন্ট বলেন, বীমা হলো একমাত্র সম্পদ যার মাধ্যমে জনগণের জীবন ও সম্পদের নিশ্চয়তা দিতে পারে। যে দেশের বীমাখাত যত শক্তিশালী সে দেশের অর্থনীতি তত শক্তিশালী। তাই বঙ্গবন্ধু দেশের স্বাধীনতার পর বীমাখাতকে শক্তিশারী করার চেষ্টা করেছেন। তিনি বলেন, বীমা দাবি যাতে সময় মতো পরিশোধ করা হয়, সেটা নিশ্চিত করতে হবে।