শনিবার , ৯ শ্রাবণ, ১৪২৮ , ২৪ জুলাই, ২০২১

জিডিপিতে বীমার অবদান ৪ শতাংশে নিয়ে যাওয়া সম্ভব: বিআইএ প্রেসিডেন্ট


Published: 2021-06-16 17:00:43 BdST

নিজস্ব প্রতিবেদক: বর্তমানে জিডিপিতে বীমার অবদান মাত্র ১ শতাংশ উল্লেখ করে বাংলাদেশ ইন্স্যুরেন্স এসোসিয়েশন (বিআইএ)’র প্রেসিডেন্ট শেখ কবির হোসেন বলেছেন, এটিকে ৪ শতাংশে নিয়ে যাওয়া সম্ভব। তিনি বলেন, বর্তমান সরকার প্রধান যেহেতু বীমার উন্নয়নে আন্তরিক, তাই সবাই একসঙ্গে কাজ করলে বীমার উন্নয়নের মাধ্যমে দেশের উন্নয়নে অবদান রাখা সম্ভব হবে।

আজ বুধবার (১৬ জুন, ২০২১) বঙ্গবন্ধু আশার আলো- বীমা দাবি পরিশোধের প্রয়াস শীর্ষক অনলাইন অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তেব্য তিনি এসব কথা বলেন। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। সভাপতিত্ব করেন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান ড. এম মোশাররফ হোসেন। অনুষ্ঠানে ৬৩ বীমা গ্রাহকের মৃত্যুদাবি বাবদ ২ কোটি টাকার চেক হস্তান্তর করা হয়।

শেখ কবির হোসেন বলেন, যে দেশের বীমা খাত যতো শক্তিশালী সে দেশের অর্থনীতি ততো শক্তিশালী। ব্রিটিশ আইনে এদেশের বীমা খাত পরিচালিত হয়ে আসছিল। বর্তমান প্রধানমন্ত্রী ক্ষমতায় আসার পরে আমরা নিজস্ব আইন প্রণয়ন করি। এখন আমরা নিজস্ব আইনে বীমা শিল্প চালাচ্ছি। কিন্তু দীর্ঘ দিনের অবহেলিত ও আবর্জনায় ভরপুর এই খাত রাতারাতি সব ঠিক হয়ে যাবে না, একটু সময় লাগবে।

শেখ কবির হোসেন বলেন, বীমা পরিবারের সদস্য হিসেবে আমি গর্ববোধ করি। কারণ, বঙ্গবন্ধু এই বীমা পরিবারের সদস্য। বঙ্গবন্ধু বীমা খাতকে বেছে নিয়েছিলেন বাংলার মানুষের সাথে যোগাযোগ করার জন্য। তার মূলমন্ত্র নেতাকর্মীদের মাধ্যমে সাধারণ মানুষের কাছে পৌছে দেয়ার জন্য। বীমা খাত এমন একটি খাত যার মাধ্যমে বাংলাদেশের স্বাধীনতার জন্য কাজ করেছেন বঙ্গবন্ধু। তাই স্বাধীনতার পর তিনি বীমা খাতের উন্নয়নে কাজ করেছেন।

অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ ইন্স্যুরেন্স ফোরাম (বিআইএফ)’র প্রেসিডেন্ট ও পপুলার লাইফ ইন্স্যুরেন্সের মুখ্য নির্বাহী কর্মকর্তা বি এম ইউসুফ আলী বলেন, ইন্স্যুরেন্স এসোসিয়েশন ও ইন্স্যুরেন্স ফোরাম একত্রে আইডিআরএ’র সাথে কাজ করছে বীমা সেক্টরকে এগিয়ে নেয়ার জন্য। তিনি বলেন, এখন হিসাব পাওয়া যায় কোন কোম্পানির কত টাকা বীমা দাবি বকেয়া রয়েছে। আগে এটা জানা যেতো না। এখন যেহেতু আমরা হিসাবের মধ্যে চলে এসেছি। তাই আমরা আরো এগিয়ে যাবো।

এম ইউসুফ আলী বলেন, প্রতিটি কোম্পানিতে গড়ে ২৫ হাজার করে জনবল যদি বাংলাদেশের মানুষকে গড়ে প্রতিদিন এক টাকা করে সঞ্চয় করার অভ্যাস গড়াতে পারে তাহলে দেশে প্রতিদিন ১৮ কোটি টাকা সঞ্চয় হবে। যা বছর শেষে হাজার কোটি টাকায় পরিণত হবে। দেশ স্বনির্ভর হবে সঞ্চয়ের অভ্যাস গড়ার মধ্য দিয়েই।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

সম্পাদক ও প্রকাশক
মোস্তাফিজুর রহমান টুংকু সম্পাদকীয় কার্যালয়
৫৩ মডার্ন ম্যানসন, মতিঝিল সি/এ, লেভেল # ১১, স্যুট # ৬, ঢাকা-১০০০।
ফোন: ০২ ৯৫১৪৮৭২, ইমেইল: insurancenewsbd@gmail.com