ফিরে দেখা ২০১৭বীমাখাতে নতুন মোড়


Published: 2017-12-31 05:57:08 BdST

আবদুর রহমান: চলে গেল ২০১৭। বীমাখাতে বেশক'টি ঘটনা রেখে গেছে বছরটি। হয়তো বীমাখাতকে এসব ঘটনার রেশ টানতে হবে আগত বছরেও। তবে বছরটিতে বীমাখাতে অর্জনও কম নেই। বীমাখাত নিয়ে জনঅনাস্থা দূর করতে বেশ কিছু উদ্যোগ এসেছে বীমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষ থেকে। এতে মোড় ঘুরতে শুরু করেছে দেশের আর্থিক খাতের অন্যতম অংশীদার বীমা শিল্পে।

নতুন নেতৃত্বে আইডিআরএ:

২০১৭ সালে নতুন নেতৃত্ব পেয়েছে বীমাখাতের নিয়ন্ত্রক সংস্থা বীমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষ (আইডিআরএ) । গত ২৩ আগস্ট কর্তৃপক্ষের চেয়াম্যান হিসেবে যোগদান করেন সাবেক সচিব শফিকুর রহমান পাটোয়ারী। আগামী ৩ বছর তিনি এ পদে দায়িত্ব পালন করবেন।

এ ছাড়াও গত ১ মার্চ কর্তৃপক্ষের নতুন সদস্য হিসেবে যোগদান করেন গকুল চাঁদ দাস। তিনি প্রায় ৬ মাস চেয়ারম্যান এর দায়িত্ব পালন করেন। আগামী ৩ বছর তিনি সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন। একই বছরের ২৮ সেপ্টেম্বর আইডিআরএ'র সদস্য (আইন) হিসেবে চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ পান অবসরপ্রাপ্ত জেলা ও দায়রা জজ বোরহান উদ্দিন আহমেদ।

বীমা দাবি আদায়ে আদালতে গ্রাহক:

২০১৭ সালে দেশের বীমা কোম্পানিগুলোর জন্য ভয়ের কারণ হয়ে দেখা দেয় গ্রাহকদের আদালতে মামলা। স্বাভাবিক প্রক্রিয়ায় না পেয়ে মামলা করে বীমা দাবি আদায় করতে আদালতের আশ্রয় নেয় গ্রাহকরা। দেশের বেশ কয়েক জেলায় বিভিন্ন আদালতে মামলা হয় কয়েকটি কোম্পানির চেয়ারম্যান, মূখ্য নির্বাহীসহ উর্ধতন কর্মকর্তাদের নামে। মামলা করে বীমা দাবি আদায় করে নেয় গ্রাহকরা।  

গোল্ডেন লাইফ ইন্স্যুরেন্সের ৪ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে প্রতারণার মামলা করে কুষ্টিয়ার ভেড়ামারার ৫১ বীমা গ্রাহক। মূখ্য নির্বাহীসহ উর্ধ্বতন ৪ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন আদালত। গ্রেফতার এড়াতে আপোষের মাধ্যমে গ্রাহকদের টাকা পরিশোধ করতে বাধ্য হয় কোম্পানিটি। এতে ৪৭ জন গ্রাহক তাদের বীমা দাবির সমুদয় অর্থ বুঝে পায়। বাকি ৫ জনের পাওনা টাকার চেক দেয়া হয়।

এরআগে কুমিল্লায় বীমা দাবি আদায়ের একটি মামলায় রূপালী লাইফ ইন্স্যুরেন্সের সাবেক ও বর্তমান ২ মূখ্য নির্বাহী ও একজন ডিএমডিসহ ৫ কর্মকর্তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন আদালত। পরবর্তীতে আপোষের শর্তে তাদেরকে অন্তবর্তীকালীন জামিন দেন আদালত। চলতি বছরে দাবি পরিশোধ করে ওই মামলার আপোষ রফা সম্পন্ন হয়।

বীমা দাবি না দেয়ায় ফারইষ্ট ইসলামী লাইফ ইন্স্যুরেন্সের চেয়ারম্যান ফারইষ্ট ইসলামী লাইফের চেয়ারম্যান মো. নজরুল ইসলাম ও ব্রাঞ্চ কো-অর্ডিনেটর মো. মোজাম্মেল হকের বিরুদ্ধে আদালতে মামলা করেন রাজবাড়ীর এক গ্রাহক। গত ১৪ মার্চ তাদের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন আদালত। বীমা দাবির ২৫ লাখ ২০ হাজার টাকা পাওনা আদায়ে মামলাটি করেন রাজবাড়ী পৌরসভার ৯ নং ওয়ার্ডের মো. রফিকুল ইসলাম বাবু।

এ ছাড়াও গোষ্ঠীবীমার আওতায় ১৫৫ শ্রমিকের মৃত্যুদাবি পরিশোধ না করার মামলায় পদ্মা ইসলামী লাইফের চেয়ারম্যান এবং প্রধান নির্বাহীসহ ৪ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন নারায়ণগঞ্জের একটি আদালত। মামলাটি করে বীমা গ্রাহক বাংলাদেশ নিটওয়্যার ম্যানুফ্যাকচারার্স এন্ড এক্সপোর্টার্স এসোসিয়েশন (বিকেএমইএ) ।

নানান দেনদরবারের পর গত ২৮ ডিসেম্বর দু'পক্ষের বৈঠকে ১২০ শ্রমিকের মৃত্যুদাবি বাবদ ২ কোটি ৪০ লাখ টাকার চেক হস্তান্তর করে পদ্মা ইসলামী লাইফ ইন্স্যুরেন্স। এসব বীমা দাবি আদায়ে কনসালটেন্ট এর দায়িত্বে ছিল ইন্স্যুরেন্স কনসালটেন্ট বিডি।

সর্বশেষ ফেডারেল ইন্স্যুরেন্সের বিরুদ্ধে দাবির টাকা পরিশোধ না করে প্রতারণার অভিযোগে মামলা করে বীমা গ্রাহক ডটকম সোয়েটার। এ মামলায় বীমা কোম্পানিটির চেয়ারম্যান এনামুল হক, এমডি মহিউদ্দীন চৌধুরী, সাবেক এমডি একেএম সারওয়ার্দী চৌধুরী ও এসিসটেন্ট ম্যানেজিং ডাইরেক্টর রফিকুল ইসলামকে হাজির হওয়ার আদেশ দেন ঢাকার একটি আদালত।

লাইফ বীমায় ব্যবস্থাপনা ব্যয়ের খসড়া প্রবিধান, পক্ষে বিপক্ষে মতামত:

চলতি বছর লাইফ বীমাখাতের কোম্পানিগুলোর ব্যবস্থাপনা ব্যয়ের সীমা নির্ধারণী প্রবিধানের খসড়া প্রকাশ করে নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষ আইডিআরএ। খসড়া অনুসারে, প্রথম বছরে গ্রাহকের জমা করা প্রিমিয়ামের ৯৮ শতাংশই খরচ করতে চায় কোম্পানিগুলো। আর পরের বছরগুলোতে খরচ করতে চায় ২৫ শতাংশ। অন্যদিকে ১০ বছর ব্যবসা করা বীমা কোম্পানিগুলো প্রথম বর্ষে খরচ করতে চায় ৯৩ শতাংশ এবং নবায়নে ২০ শতাংশ।

লাইফ বীমা কোম্পানির ব্যয় সংক্রান্ত নীতিমালা প্রণয়নের উদ্দেশ্যে এমন প্রবিধানের প্রস্তাব করে এ বিষয়ে মতামত চেয়ে এর খসড়া কর্তৃপক্ষের ওয়েবসাইট-এ দেয়া হয়। বিষয়টি নিয়ে পক্ষে বিপক্ষে ব্যাপক মন্তব্য আসতে থাকে বীমাখাত থেকে। বীমা বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ব্যয় সংক্রান্ত এমন নীতিমালা হলে গ্রাহক স্বার্থ ঝুঁকিতে পড়বে। ফলে বীমার প্রতি আগ্রহ হারাবে সাধারণ মানুষ। বীমাখাতে অন্ধকার নেমে আসবে।

সরকারি ফান্ডে আইডিআরএ'র ১০০ কোটি টাকা জমা:

চেয়ারম্যান হিসেবে এম শেফাক আহমেদের দ্বিতীয় দফার মেয়াদ শেষ হওয়ার দু'দিন আগে সরকারের কোষাগারে ১০০ কোটি টাকা জমা দেয় বীমাখাতের নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইডিআরএ । বীমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষ (তহবিল ব্যবস্থাপনা) প্রবিধানমালা, ২০১১’ এর ৩১ ধারা অনুযায়ী এ টাকা জমা দেয়া হয়।

গত এপ্রিলে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিতের কার্যালয়ে আইডিআরএ চেয়ারম্যান এম শেফাক আহমেদ এবং ২ সদস্য মো. মুরশিদ আলম ও গকুল চাঁদ দাস ১০০ কোটি টাকার চেক হস্তান্তর করেন। এর আগে আইডিআরএ দু’বারে ২৮ কোটি ৪৭ লাখ ৪৫ হাজার টাকা সরকারি কোষাগারে জমা দিয়েছে।

সিলেটে বীমা মেলা:

বর্ণাঢ্য আয়োজনে গত ২২ ও ২৩ ডিসেম্বর পুণ্যভূমি সিলেটে অনুষ্ঠিত হয় বীমা মেলা ২০১৭। সবার জন্য উন্মুক্ত এ বীমা মেলা আয়োজন করে বীমাখাতের নিয়ন্ত্রক সংস্থা বীমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষ (আইডিআরএ) । এরআগে ২০১৬ সালের মার্চে ঢাকায় প্রথমবারের মতো বীমা মেলা অনুষ্ঠিত হয়।

সিলেটে কবি নজরুল অডিটোরিয়ামে বীমা মেলার উদ্বোধন করেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। প্রবেশ ফি মুক্ত এ মেলা চলে সকাল ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত। অর্থ মন্ত্রণালয়ের আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগ, বাংলাদেশ ইন্স্যুরেন্স এসোসিয়েশন, বাংলাদেশ ইন্স্যুরেন্স ফোরাম এবং বীমা সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠান মেলা আয়োজনে সহযোগিতা করে।

রীট খারিজ: ক্ষমতা ফিরে পেল সিআরসি:

প্রজ্ঞাপন বাতিল করার ২ বছর পর উদ্যোগ নেয়ায় রীট খারিজ করেন আদাল। এর ফলে প্রিমিয়াম হার নির্ধারণ করাসহ সকল ধরণের কার্যক্রম পরিচালনায় সেন্ট্রাল রেটিং কমিটির আর কোনো বাধা নেই। চলতি বছরের ৮ মে এক চিঠিতে এ তথ্য জানায় আইডিআরএ। ২০১৬ সালের ৮ নভেম্বর হাইকোর্ট বেঞ্চ এ নিয়ে করা ২টি রিট খারিজ করেছেন বলে জানা যায়।

আইনি জটিলতায় পড়ে ২ বছর আগে নন-লাইফ বীমার বিশেষ মূল্যহার সংক্রান্ত ২৪ নং সার্কুলার প্রত্যাহার করে নেয় বীমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষ (আইডিআরএ) । কিন্তু হাইকোর্টে রিট মামলা নিষ্পত্তি করার কোন উদ্যোগ নেয়নি। ফলে ঝুলে থাকে সেন্ট্রাল রেটিং কমিটি (সিআরসি)’র কার্যক্রম।

আইডিআরএ'র উদ্যোগে সাড়ে তিন মাসে ৯৯ কোটি টাকার দাবি পরিশোধ:

বীমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষের বিশেষ উদ্যোগে চলতি বছরের সেপ্টেম্বর থেকে ১৬ ডিসেম্বর পর্যন্ত সাড়ে ৩ মাসে বেসরকারি ৩টি লাইফ ও ৩টি নন-লাইফ বীমা কোম্পানি সর্বমোট ৯৯ কোটি ৩ লাখ ৬৮ হাজার ৬৯৫ টাকার বীমা দাবি পরিশোধ করেছে। গত ২২ ও ২৩ ডিসেম্বর সিলেটে অনুষ্ঠিত বীমা মেলা ২০১৭ উপলক্ষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান আইডিআরএ'র চেয়ারম্যান শফিকুর রহমান পাটোয়ারী।

প্রবাসী কল্যাণ বীমা কোম্পানি গঠনের প্রস্তাব বাজেটে:

প্রবাসী কর্মীদের কল্যাণে বিশেষায়িত বীমা কোম্পানি গঠনের প্রস্তাব করা হয় ২০১৭-১৮ অর্থ বছরের বাজেটে। জাতীয় সংসদে প্রস্তাবিত এ বাজেট উপস্থাপন করেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত। দেশের ৪৬তম এই বাজেটের আকার ৪ লাখ ২৬৬ কোটি টাকা।

বাজেট বক্তব্যে অর্থমন্ত্রী জানান, বাংলাদেশের বীমাখাতের আইনি ও প্রশাসনিক সংস্কারের অংশ হিসেবে বীমা করপোরেশন আইন প্রণয়নের কাজ চলমান রয়েছে। পাশাপাশি, স্বাস্থ্য বীমা চালুকরণ, সামাজিক বীমা ব্যবস্থা প্রবর্তন, কৃষিজাত পণ্যের জন্য আবহাওয়া সূচক ভিত্তিক শস্য বীমা চালুকরণসহ বীমাখাতের সক্ষমতা বৃদ্ধির কার্যক্রমও আমরা অব্যাহত রাখব।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

সম্পাদক ও প্রকাশক
মোস্তাফিজুর রহমান টুংকু সম্পাদকীয় কার্যালয়
৫৩ মডার্ন ম্যানসন, মতিঝিল সি/এ, লেভেল # ১১, স্যুট # ৬, ঢাকা-১০০০।
ফোন: ০২ ৯৫১৪৮৭২, ইমেইল: insurancenewsbd@gmail.com