বীমার আওতায় ভারতের ৯২% ব্যাংক একাউন্ট


Published: 2019-09-03 17:13:40 BdST

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক: ভারতের সরকারি বেসরকারি বিভিন্ন ব্যাংকের ৯২ শতাংশ একাউন্ট বীমার আওতায় এসেছে। তবে মোট আমানতের দিক থেকে এর পরিমাণ ২৮ শতাংশ। এই হিসাবে দেশটির মাথাপিছু আয়ের দশমিক ৮ শতাংশ বীমার আওতায়। রিজার্ভ ব্যাংক অব ইন্ডিয়া সম্প্রতি এ তথ্য প্রকাশ করেছে।

কেন্দ্রিয় ব্যাংকের বার্ষিক প্রতিবেদন অনুসারে, ২০১৯ সালের মার্চ শেষে দেশটিতে মূল্যায়নযোগ্য আমানতের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ১২০ লাখ কোটি রুপি। এরমধ্যে বীমার আওতায় রয়েছে ৩৩ দশমিক ৭ লাখ কোটি রুপি, যা ২৮ শতাংশ। আন্তর্জাতিক মান অনুসারে ২০ থেকে ৩০ শতাংশ আমানত বীমার আওতায় থাকতে হয়।

ডিপোজিট ইন্স্যুরেন্সের বিধান অনুসারে ১ লাখ টাকা পর্যন্ত আমানত বিশিষ্ট ব্যাংক একাউন্ট বীমার আওতায় থাকবে। সে হিসাবে গত মার্চ পর্যন্ত বীমা দ্বারা সম্পূর্ণ সুরক্ষিত একাউন্টের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২০০ কোটি। যা মোট একাউন্টের ৯২ শতাংশ। আন্তর্জাতিক মান অনুসারে ৮০ শতাংশ একাউন্ট বীমার আওতায় থাকতে হয়।

ভারতের বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোর আমানতের বীমা সুবিধা দেয় ডিপোজিট ইন্স্যুরেন্স এন্ড ক্রেডিট গ্যারান্টি করপোরেশন (ডিআইসিজিসি) । ২০১৮-১৯ অর্থ বছরের শেষ নাগাদ দেশটির ২ হাজার ৯৮টি ব্যাংক বীমার আওতায় এসেছে। এরমধ্যে ১৫৭টি বাণিজ্যিক ব্যাংক এবং বাকী ১ হাজার ৯৪১টি কো-অপারেটিভ ব্যাংক।

২০১৯ সালের ৩১ মার্চ নাগাদ দেশটিতে আমানত বীমা ফান্ডের পরিমাণ দাঁড়ায় ৯৩ হাজার ৭৫০ কোটি রুপি। আর ডিপোজিট ইন্স্যুরেন্স এন্ড ক্রেডিট গ্যারান্টি করপোরেশন ২০১৮-১৯ অর্থ বছরে বীমা দাবি অনুমোদন করেছে সর্বমোট ৩৭ কোটি রুপি। আগের বছরে এই বীমা দাবি অনুমোদনের পরিমাণ ছিল ৪৩ কোটি রুপি। (সূত্র: ইকনোমিক টাইমস)

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

সম্পাদক ও প্রকাশক
মোস্তাফিজুর রহমান টুংকু সম্পাদকীয় কার্যালয়
৫৩ মডার্ন ম্যানসন, মতিঝিল সি/এ, লেভেল # ১১, স্যুট # ৬, ঢাকা-১০০০।
ফোন: ০২ ৯৫১৪৮৭২, ইমেইল: insurancenewsbd@gmail.com