২৩ বীমা কোম্পানিকে সতর্ক করল আইডিআরএ

নিজস্ব প্রতিবেদক: ২০১৯ সালের মধ্যে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত হওয়ার নির্দেশনা এখনো বাস্তবায়ন করতে পারেনি এমন ২৩টি লাইফ ও নন-লাইফ বীমা কোম্পানিকে সতর্ক করল বীমা খাতের নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইডিআরএ। আজ বৃহস্পতিবার (১৫ জুলাই) এ সংক্রান্ত ভার্চুয়াল বৈঠকে বীমা কোম্পানিগুলোকে সতর্ক করা হয় বলে সংশ্লিষ্ট সূত্র জানিয়েছে।

সূত্র মতে, পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত হওয়ার জন্য যেসব কোম্পানি এরইমধ্যে বিএসইসি’র শর্তাদি পূরণে এগিয়ে রয়েছে তাদেরকে জুনের একাউন্ট দিয়ে আবেদন করতে বলা হয়েছে। বাকীদের আগামী সেপ্টেম্বরের একাউন্ট দিয়ে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত হওয়ার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

তবে কোনভাবেই যাতে ২০২১ সাল পার না হতে হয় সে বিষয়ে সতর্ক করেছে আইডিআরএ। যদিও বেশ কয়েকটি বীমা কোম্পানি ২০২১ সালের একাউন্ট দিয়েও পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত হতে পারবে না বলে সময় চেয়েছে। তবে বেশিরভাগ কোম্পানি ডিসেম্বরের একাউন্ট দিয়ে আইপিও’তে যেতে পারবে বলে জানিয়েছে।

তথ্য অনুসারে, ২০১৯ সালের ১৫ সেপ্টেম্বর পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্তির বিষয়ে অর্থমন্ত্রীর সভাপতিত্বে একটি সভা হয়। সভায় ১৮টি লাইফ ও ৯টি নন-লাইফ বীমা কোম্পানিকে ৩১ ডিসেম্বর ২০১৯ এর মধ্যে তালিকাভুক্ত হওয়ার নির্দেশনা দেয়া হয়। তবে আজ পর্যন্ত ৪টি বীমা কোম্পানি এ নির্দেশনা বাস্তবায়ন করেছে।

এদিকে অর্থমন্ত্রীর বৈঠকের পর বীমা কোম্পানিগুলোর চেয়ারম্যান ও মুখ্য নির্বাহী কর্মকর্তাসহ অর্থ মন্ত্রণালয়ের আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগ এবং বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ এন্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের প্রতিনিধিসহ বীমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষের কার্যালয়ে বেশ কয়েকটি সভাও অনুষ্ঠিত হয়।

কর্তৃপক্ষের অনুরোধের প্রেক্ষিতে বীমা কোম্পানিগুলোকে নির্ধারিত মূল্য পদ্ধতির মাধ্যমে আইপিওতে মূলধন উত্তোলণের ক্ষেত্রে সর্বনিম্ন ৩০ কোটি টাকা উত্তোলনের বাধ্যবাধকতা থেকে অব্যাহতি দিয়ে সর্বনিম্ন ১৫ কোটি টাকা বা তার বেশি মূলধন উত্তোলনের মাধ্যমে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্তির অনুমোদন প্রদান করেছে বিএসইসি।