শেয়ারবাজারসহ ৩ খাতে বিনিয়োগ করতে পারবে না সানলাইফ

নিজস্ব প্রতিবেদক: বেসরকারি বীমা কোম্পানি সানলাইফ ইন্স্যুরেন্সের বিনিয়োগে বিধিনিষেধ আরোপ করেছে বীমাখাতের নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইডিআরএ। এর ফলে স্থায়ী সম্পত্তি (ভূমি, বিল্ডিং, দালানকোঠা), শেয়ারবাজার এবং নতুন গাড়ি ক্রয় -এই ৩টি খাতে আর কোন অর্থ বিনিয়োগ করতে পারবে না কোম্পানিটি। গত বুধবার এই নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে কর্তৃপক্ষ।

বীমা উন্নয়ন ও নিয়্ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষ (আইডিআরএ) বলছে, সানলাইফ ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি ২০০০ সালে যাত্রা শুরু করে ২০ বছর অতিবাহিত করেছে। কোম্পানির বয়স বৃদ্ধির সাথে সাথে গ্রাহকদের আস্থা তৈরি ও বাজার পরিধি বৃদ্ধি পাওয়াটাই স্বাভাবিক। কিন্তু সানলাইফ ইন্স্যুরেন্স কোম্পানির ক্ষেত্রে তার ব্যতিক্রম পরিলক্ষিত হচ্ছে।

কোম্পানি প্রদত্ত তথ্যাদি বিশ্লেষণে দেখা যায়, গ্রাহকদের প্রিমিয়াম আয়ের ক্রমযোজিত অর্থে যে লাইফ ফান্ড তৈরি হয় তার সঠিক ব্যবস্থাপনার অভাবে কোম্পানি ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে এবং কোম্পানির বিনিয়োগ রিটার্ন অত্যন্ত কম হচ্ছে।

সানলাইফের ২০১৬, ২০১৭ ও ২০১৮ সালের বিনিয়োগ রিটার্ন পর্যালোচনা করে দেখা যায়, কোম্পানিটি উক্ত সাল সমূহে যথাক্রমে ৩.৪৭%, ৫.১৩% এবং ৩.৬০% রিটার্ন অর্জন করেছে। যা উক্ত সাল সমূহের বাজার রেটের চেয়ে অনেক কম। এক্ষেত্রে এখানে সুযোগ ব্যয়ের পরিমাণ অনেক বেশি।

আইডিআরএ বলছে, বীমা কোম্পানিটি ভূমি, শেয়ারবাজারসহ স্থায়ী সম্পত্তিতে অধিক পরিমাণ অর্থ বিনিয়োগ করার ফলে এমন পরিস্থিতির উদ্ভব হয়েছে। যার ফলসরূপ কোম্পানির লাইফ ফান্ড বৃদ্ধি পায়নি এবং কোম্পানির পলিসিহোল্ডারদের অর্থ পরিশোধে নেতিবাচক ভূমিকা রাখছে।

বিদ্যমান পরিস্থিতিতে স্থায়ী সম্পত্তি (ভূমি, বিল্ডিং, দালানকোঠা), শেয়ারবাজার এবং নতুন গাড়ি ক্রয়ের বিষয়ে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হল। এক্ষেত্রে বর্ণিত খাতসমূহে কোম্পানি আর কোন অর্থ বিনিয়োগ করতে পারবে না। গত ৩ ফেব্রুয়ারি বুধবার বীমা কোম্পানিটিতে পাঠানো এই চিঠিতে স্বাক্ষর করেছেন কর্তৃপক্ষের পরিচালক (উপসচিব) মো. শাহ আলম।