শুক্রবার , ৩ আষাঢ়, ১৪২৮ , ১৮ জুন, ২০২১

দায় বীমার ক্ষেত্রে প্রযোজ্য বিখ্যাত মামলা


Published: 2021-05-20 13:33:28 BdST

মো. মামুনুল হাসান, এসিআইআই: সাধারণত টর্ট আইনে কাউকে দায়ী করতে হলে দায়ী ব্যক্তির অবহেলা, অভিপ্রায় ইত্যাদি বিবেচনা করতে হয় এবং এইরূপ অবহেলা বা অভিপ্রায় থাকলেই কোন ব্যক্তিকে অভিযুক্ত করা হয় বা টর্ট আইনে অভিযুক্ত হন।

কিন্তু টর্ট আইনে এমন কিছু বিশেষ বিশেষ ক্ষেত্রে রয়েছে যেখানে কোন দায়ী ব্যক্তির অবহেলা থাকুক বা না থাকুক, সে কোন রকমে তার দায় এড়াতে পারে না এইরূপ দায়কে পরম দায় (Absolute Liability) বলা হয়।

কঠোর দায় (Strict Liability) ঠিক পরম দায় (Absolute Liability) এর মতো। তবে এক্ষেত্রে আংশিক অবহলো (Contributory Negligence Voluntary Venture) কোন কোন ক্ষেত্রে প্রযোজ্য হতে পারে।

পরম দায় ও কঠোর দায় নীতিটি প্রখাত রাইল্যান্ডস বনাম ফ্লেচার (RYLANDS-VS FLETCHER) নামক মামলার প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। যা দায় বীমার ক্ষেত্রে প্রযোজ্য।

বিবরণ (Facts of the Case) :

এই মামলার ঘটনার প্রকাশ, বাদি কতিপয় খনির দখলদার ছিলেন এবং  বাদির জমির পার্শ্বে অবস্থিত মিলের মালিক ছিলেন বিবাদীগণ। বিবাদীগণ তাদের জমির উপর একটি জলাধার নির্মাণ করতে ইচ্ছা করেন এবং তা নির্মাণের জন্য যোগ্য ইঞ্জিনিয়ার এবং ঠিকাদার নিযুক্ত করেন।

বিবাদীগণের জমির ওপর কতিপয় অব্যহৃত খনি ছিল এবং ওই খনিগুলোর খাড়া স্তম্ভের সাথে জমির ওপর থেকে সুড়ঙ্গ ছিল এবং ওই স্তম্ভগুলো মাটিতে পূর্ণ থাকায় স্পষ্টভাবে দেখা যায়নি।

জলাধার নির্মাণ শেষে পানি দ্ধারা পূর্ণ করা হলে পানি স্তম্ভগুলোর ভেতর দিয়ে গমণপূর্বক বাদির খনিগুলো প্লাবিত করে এবং এতে বাদির ক্ষতি হয়।

বাদি ক্ষতিপূরণের মামলা করেন এবং বিবাদীগণের অবহেলা না থাকা সত্বেও বাদি ক্ষতিপূরণের ডিক্রি পান এবং এটি সত্য হিসেবে প্রমাণিত হয়েছিল যে বিবাদীর গাফলতি ছিল না তবুও বিবাদীকে দায়বদ্ধ বলে গণ্য হয়েছিল এবং আপিলের ভিত্তিতে হাউস অব লর্ডস দ্ধারা রায়টি নিস্পত্তি করা হয়েছিল।

এই মামলায় ব্লাকবার্ণ জে কর্তৃক প্রতিষ্ঠিত বিধি হচ্ছে, যখন কোন ব্যক্তি নিজ উদ্দেশ্যে তার জমির ওপর কোন পদার্থ জড়ো করে ও রাখে, যা ছাড়া পেলে বা নিস্ক্রান্ত হইলে সম্ভবত অন্যের ক্ষতি করে, তখন ওই ব্যক্তি তা নিজের ঝুঁকিতে রাখে এবং সেটা নিস্ক্রান্ত হয়ে অন্যের ক্ষতি করলে ওই ব্যক্তি সুনিশ্চিত দায়ে দায়ী হয় । অর্থাৎ সে উক্ত ক্ষতির জন্য দায়ী হয়, যদিও সেটা তার ইচ্ছায় বা অবহেলায় জন্য হয়নি।

এখানে বিশেষভাবে উল্লেখ্য যে, এই নীতিটি শুধুমাত্র উল্লেখিত ক্ষেত্রে সীমাবদ্ধ নয়, অন্যান্য ক্ষেত্রেও এই নীতিটি একইভাবে প্রযোজ্য। যেমন- বিপদজনক জীবজন্তু, গ্যাস, বিষাক্ত বস্তু, আগুন ইত্যাদির ক্ষেত্রে এই নীতি প্রযোজ্য।

(চলবে....)

লেখক: সিনিয়র এক্সিকিউটিভ ভাইস প্রেসিডেন্ট, প্রগতি ইন্স্যুরেন্স লিমিটেড।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

সম্পাদক ও প্রকাশক
মোস্তাফিজুর রহমান টুংকু সম্পাদকীয় কার্যালয়
৫৩ মডার্ন ম্যানসন, মতিঝিল সি/এ, লেভেল # ১১, স্যুট # ৬, ঢাকা-১০০০।
ফোন: ০২ ৯৫১৪৮৭২, ইমেইল: insurancenewsbd@gmail.com