কমপিটিশন ল’ থেকে অব্যাহতি পাচ্ছে মিয়ানমারের বীমাখাত


Published: 2019-10-01 00:35:00 BdST

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক: কমপিটিশন ল’ বা প্রতিযোগিতা আইন থেকে অব্যাহতি পেতে যাচ্ছে মিয়ানমারের বীমাখাত। রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন বীমা কোম্পানি মিয়ানমা ইন্স্যুরেন্স’র সুরক্ষায় এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে দেশটির সরকার। এলক্ষ্যে প্রচলিত আইন সংশোধন করে এরইমধ্যে নতুন আইনের খসড়া তৈরি করা হয়েছে।

এই সুরক্ষা প্রদান করা হবে ‘বীমা ব্যবসা আইন’র মাধ্যমে, যার একটি খসড়া দ্য মিয়ানমার টাইমস দেখতে পেরেছে। প্রস্তাবিত এই আইনে বলা হয়েছে, কমপিটিশন ল’ বা প্রতিযোগিতা আইন বীমা পরিকল্প এবং ইন্স্যুরেন্স বিজনেস রেগুলেটরি বোর্ড (আইবিআরবি)’র অনুমোদিত হারের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য হবে না।

খসড়া আইন অনুসারে, অন্যান্য বিষয়ের মধ্যে লাইসেন্সিং, করপোরেট গভর্নেন্স, লিকুইডেশন নিয়ন্ত্রণের বিধান থেকেও অব্যাহতি পাবে মিয়ানমা ইন্স্যুরেন্স। ফিনান্সিয়াল রেগুলেশন ডিপার্টমেন্ট (এফআরডি) রচিত খসড়া আইনটির বিষয়ে বর্তমানে সংশ্লিষ্টদের পরামর্শ নেয়া হচ্ছে এবং ১৯৯৬ সালের আইনটি প্রতিস্থাপন করা হবে।

বর্তমানে মিয়ানমা ইন্স্যুরেন্স’র প্রায় ৫০টির মতো বিভিন্ন ধরণের বীমা পরিকল্প বাজারে রয়েছে। অন্যদিকে বেসরকারি বীমা কোম্পানিগুলোকে মাত্র কয়েকটি বীমা পরিকল্প বাজারে ছাড়ার অনুমোদন দেয়া হয়েছে। বিদেশি কোম্পানিগুলোর সাথে পুনর্বীমা ব্যবসাও পরিচালিত হতে পারে শুধুমাত্র মিয়ানমা ইন্স্যুরেন্স’র মাধ্যমে, বেসরকারি কোম্পানির সাথে নয়।

সংশ্লিষ্ট একটি সূত্র জানিয়েছে, প্রস্তাবিত অব্যাহতি সুপারিশ করে যে সরকার ভোক্তা এবং বিনিয়োগকারীদের জন্য সুষ্ঠু প্রতিযোগিতার গুরুত্ব বোঝে না। এটি কতটা কার্যকর হবে তা নিয়ে এরইমধ্যে প্রশ্ন উত্থাপন করেছে বাণিজ্যমন্ত্রীর সভাপতিত্বে অন্যান্য কর্মকর্তাদের দ্বারা গঠিত কমপিটিশন কমিশন।

২০১৫ সালে সংসদে কমপিটিশন ল’ পাস করার ৩ বছরের বেশি সময় পর গত জুনে আনুষ্ঠানিকভাবে যাত্রা শুরু করে এই কমিশন।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

সম্পাদক ও প্রকাশক
মোস্তাফিজুর রহমান টুংকু সম্পাদকীয় কার্যালয়
৫৩ মডার্ন ম্যানসন, মতিঝিল সি/এ, লেভেল # ১১, স্যুট # ৬, ঢাকা-১০০০।
ফোন: ০২ ৯৫১৪৮৭২, ইমেইল: insurancenewsbd@gmail.com