বীমা শিল্পে দক্ষ ও মানসম্পন্ন জনবলের অভাব প্রসঙ্গে


Published: 2020-05-11 13:03:16 BdST

এ কে এম এহসানুল হক, এফসিআইআই: প্রকৃতিগতভাবে বীমা ব্যবসা আর অন্য দশটি সাধারণ ব্যবসা থেকে ভিন্ন। এই ব্যবসা সুষ্ঠুভাবে পরিচালনার জন্য চাই শিক্ষিত এবং দক্ষ জনবল। দুঃখজনকভাবে বীমা শিল্পে অভিজ্ঞ এবং দক্ষ জনবলের প্রচণ্ড ঘাটতি রয়েছে বলে বীমা বিশেষজ্ঞদের ধারণা।

এই নৈরাজ্যজনক পরিস্থিতির জন্য একাধিক কারণকে দায়ি করা যেতে পারে, যা সংক্ষেপে নিম্নে তুলে ধরা হলো-

১। দরিদ্র বেতন কাঠানো এবং নিম্ন সুযোগ সুবিধা (অন্য আর্থিক প্রতিষ্ঠানের তুলনায়) ।

২। সুষ্ঠু নিয়োগ পদ্ধতি এবং নীতির অভাব।

৩। প্রশিক্ষণের স্বল্পতা বা অভাব।

৪। স্বজনপ্রীতি।

৫। কর্মরত বীমা ডিপ্লোমাধারীদের প্রয়োজনীয় সুযোগ সুবিধা ও প্রণোদনা প্রদানে কর্তৃপক্ষের অনীহা।

৬। বীমা শিক্ষা সম্প্রসারণ এবং উৎসাহে প্রয়োজনীয় বিনিয়োগে কর্তৃপক্ষের অনীহা।

৭। দক্ষ জনবল তৈরির নিমিত্তে সময়ে সময়ে প্রজ্ঞাপন জারি করলেও তা বাস্তবায়ন বা কার্যকরী করতে বীমা কর্তৃপক্ষের ব্যর্থতা।

৮। দূর্বল মানবসম্পদ উন্নয়ন পলিসি।

৯। কর্তৃপক্ষের উৎসাহ এবং অঙ্গীকারের অভাব।

১০। অধিক থেকে অধিকতর বাণিজ্যিক মনোভাব, যেখানে স্বার্থপরতার ছোঁয়া অনুভব করা যায়।

বীমা শিল্পে দক্ষ জনবলের অভাব সর্বজন স্বীকৃত। অথচ আশ্চার্যজনকভাবে এই অসন্তোষ এবং অবাঞ্চনীয় অবস্থার অবসান এবং পরিবর্তন বা উন্নতির জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের তেমন মাথা ব্যথা আছে বলে মনে হয় না।

পরিস্থিতি এভাবে চলতে থাকলে বীমা শিল্পের ভবিষ্যৎ যে মোটেই আশাব্যঞ্জক নয় তা বলাই বাহুল্য। বীমা শিল্পকে বর্তমান পরিস্থিতি থেকে উত্তরণের জন্য দক্ষ জনবলের কোন বিকল্প নেই।

বীমা শিল্পের সার্বিক উন্নতির কথা চিন্তা করে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ উপরে বর্ণিত সমস্যাগুলো সমাধানে আশু পদক্ষেপ গ্রহণ করবে তাদের কাছে এটাই প্রত্যাশা এবং কাম্য।

লেখক: জেনারেল সেক্রেটারি, বাংলাদেশ ইন্স্যুরেন্স প্রফেশনালস সোসাইটি (বিআইপিএস) ।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

সম্পাদক ও প্রকাশক
মোস্তাফিজুর রহমান টুংকু সম্পাদকীয় কার্যালয়
৫৩ মডার্ন ম্যানসন, মতিঝিল সি/এ, লেভেল # ১১, স্যুট # ৬, ঢাকা-১০০০।
ফোন: ০২ ৯৫১৪৮৭২, ইমেইল: insurancenewsbd@gmail.com